কবিতা

★পুরনো এলবাম থেকে★

(এই লেখাটা একদম কচি বয়সের লেখা আমার)

রাতের আকাশ বলছে আমায় ডেকে

লিখছ যে এত দিস্তে দিস্তে

পড়বে তোমায় কে?

বলছে বাতাস জরাগ্রস্থ

যখন সূর্য যাবে অস্ত,

রোদ উঠবে, পাখি ডাকবে

দিনটাই যাবে কেটে,

তোমার লেখা তুমিই পড়ো

বলবে লোকে ডেকে।

আমার বাবা অনেক কাজ

সময় যাচ্ছে বয়ে,

আকাশ বাতাস এক করে যে আজ

বিপদ আসছে ধেয়ে।

তোমার বিপদ তুমিই সামলাও

আমার কী কাজ?

বৃষ্টি পড়বে, মুকুল ঝরবে

সাথে পড়বে বাজ!

বাজ পড়ার সেই করুণ কথা

লিখব আমার গায়ে,

অহর্নিশি মরণ আমার

বিষাণ বাজে নায়ে।

রক্ত আমার গরম করে

উঠলো বেজে মমশির,

আপন টানে কোকিল ছানা

খুঁজছে দেখো নীড়।

পুচ্ছটি নাচায়ে কাঠবিড়ালি কেমন কেমন করে

বাবুদের সেই মিঁও বেড়াল রাখবে কে ঘরে?

প্রবল ঝড়ে যখন মাঝি হয়রে দিশেহারা,

ঐ দিকেতে চলছে যুদ্ধ, করছে যেন কারা।

সোল্লাসে যেন বলছে কারা, ‘উই আর উইন’,

মরুর পথে চলছে যে আরব বেদুঈন।

কোথাও বা আজব মানুষ মাত্র ইঞ্চি ছয়,

কিশোর, মুসা, রবিনরাও এর বাইরে নয়!

ঐ দেখা যায় কালো মানুষ

ঐ দেখা যায় সাদা,

আকাশ পানে উড়ছে ফানুশ

সন্ত্রাসী হয় দাদা।

ডাকলো আবার রাতের আকাশ

বকলো আমায় খুব।

পদ্য পড়িয়া কবি গুরু

মারলো আবার ডুব।

এই দেখিয়া আফ্রোদিতি

বললো উঠে হেসে,

কবিতা তুমি ভালোবাসো

আমায় না বেসে!

IMG_20190110_192835.jpg

এস. এম. রায়হান চৌধুরী

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top